শীতলক্ষ্যায় ভেসে উঠল আরো ৫ লাশ, নিহত বেড়ে ৩৫

শীতলক্ষ্যা,লঞ্চডুবি,লাশ,মরদেহ,স্বজনরা,জেলা প্রশাসন নদীতে
ছবি সংগৃহিত

খাসখবর দুরগ্রাম ডেস্ক : এক শিশুসহ আরও পাঁচজনের লাশ ভেসে উঠল নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদীতে। অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে লঞ্চডুবির ঘটনায় এ পাঁচ জনের মরদেহ উদ্ধারে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাড়াল ৩৫ জনে।

thai foods

এর আগে সোমবার ডুবে যাওয়া লঞ্চটিকে নদীগর্ভ থেকে উঠিয়ে আনতে সক্ষম হয় উদ্ধারকারী দল। পরে একইদিন উদ্ধারকাজ সমাপ্ত ঘোষণা করার পর আজ মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) সকালে ওই নদীতেই ভেসে উঠে মরদেহগুলো।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার ভোর থেকে ৯ বছর বয়সী এক শিশুসহ একে একে পাঁচটি মরদেহ ভেসে ওঠে নারায়নগঞ্জ সদর উপজেলার কয়লাঘাট এলাকাস্থ শীতলক্ষ্যা নদীতে।

স্থানীয়দের সহযোগীতায় তিনটি এবং নারায়ণগঞ্জ নৌ-থানা পুলিশের একটি টিম অপর মরদেহ দুটি উদ্ধার করে। লঞ্চডুবির ঘটনায় নতুন মরদেহ উদ্ধারের সংবাদ পেয়ে ছুটে আসেন নিখোঁজ ব্যাক্তিদের স্বজনরা। শনাক্তের পর তারা জানিয়েছেন নিহত সকলের বাড়ি মুন্সিগঞ্জ জেলায়।

পরিচয় শনাক্ত করার পর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মরদেহগুলো পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ সময় স্বজনদের আহাজারিতে এলাকার পরিবেশ ভারী হয়ে উঠে।

সোমবার দুপুর ১২টা ২০ মিনিটের দিকে ‘সাবিত আল হাসান’ নামে লঞ্চটি তীরে তোলা হয়। এ সময় নিখোঁজ যাত্রীদের স্বজনরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। তারা রবিবার রাত থেকেই নদীর তীরে অপেক্ষা করছিলেন।

মাঝ নদী থেকে সাবিত আল হাসান নামে লঞ্চটি টেনে পারের দিকে নিয়ে আসা হয়। সেসময় আশেপাশে ভিড় করেন স্থানীয়রা। উদ্ধারকর্মীদের পাশাপাশি লঞ্চটি তোলার পর সেখান থেকে মরদেহ উদ্ধারের কাজে হাত লাগান স্থানীয়রা।

খখ/প্রিন্স

আগেইন্দোনেশিয়া ও পূর্ব তিমুরে আকস্মিক বন্যায় মৃত্যু দেশতাধিক
পরেকরোনায় একদিনে দেশে সর্ব্বোচ্চ মৃত্যু ও শনাক্তের রেকর্ড